রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৭ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
দেশের সকল জেলা, থানা/উপজেলা/ইউনিয়ন এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে "দি সকাল বিকাল " এ চীফ রিপোর্টার, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে আগ্রহী প্রার্থীরা আজি যোগাযোগ করুন drsubratabogra@gmail.com । প্রিয় পাঠক আপনিও “দি সকাল বিকাল” নিউজকে পাঠাতে পারেন আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনার কথা জানাতে পারেন আপনার অভিজ্ঞতা অথবা আপিও হতে পারেন একজন সাংবাদিক । দি সকাল বিকাল এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ আমাদের সাথেই থাকুন
শিরোনামঃ
হারিয়ে যাচ্ছে বেদা জয়পুরহাটে সাংবাদিক আবদুল আলীম কে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি আমি যদি ভাল কাজ করে থাকি তাহলে এবার ও চাঁদগ্রামবাসী আমাকেই বিপুল ভোটে জয় করবে — চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপন ফুলবাড়ীতে বন‍্যায় আমনের ক্ষেত নষ্ট উলিপুরে সরকারি চাল কালো বাজারে বিক্রির সময় আটক-১, অভিযুক্ত আ’লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে মামলা জয়পুরহাটে শিশু অপহরণ মামলায় যুবকের ২৫ বছর কারাদণ্ড ভেড়ামারা পৌর ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত। পাঁচবিবিতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আন্তঃজেলার কুখ্যাত ডাকাত শহিদুল ইসলাম (কারেন্ট)সহ গ্রেফতার-৩ এমপি পনির উদ্দিন এর অবদানে কুড়িগ্রামবাসীর জন্য ৩টি আনন্দের খবর কালাইয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

মৃত্যুর মিছিলে ঢাকার নামও যুক্ত হোল।

রিপোর্টারের নাম / ৪৪১ বার
আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১

লেখকঃ ডা, মওদুদ হোসেন আলমগীর পাভেল।

অবশেষে ডেল্টার রাজধানী ভ্রমণ কোনোভাবেই ঠেকানো গেল না। মৃত্যুর মিছিলে ঢাকার নামও যুক্ত হোল। এদেশে সবই রাজধানী কেন্দ্রীক, ব্যবসা থেকে চিকিৎসা সবই। খুলনা আর রাজশাহীতে ডেল্টার দাপট রাজধানীবাসীকে সতর্ক করতে পারেনি। টেলিভিশনে রাজা উজির না মেরে রাজধানী আর সারাদেশ হাসপাতাল শয্যা, অক্সিজেন, ওষুধ সবকিছুতেই এখনি প্রয়োজন পেশাদারী ব্যবস্থাপনা। সকল প্রচার মাধ্যমে হাসপাতাল শয্যার হালনাগাদ তথ্য, উপসর্গের কোন পর্যায়ে হাসপাতালে যাওয়া প্রয়োজন আর কতক্ষন বাসায় চিকিৎসা নেয়া যায় তার পরামর্শ। এলাকাভিত্তিক ভ্রাম্যমান মেডিকেল টিম রোগীর উপসর্গ আর অক্সিজেন চাহিদা পরিমাপ করতে পারে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হটলাইন আর মোবাইল টীম এখনই থাকতে পারে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করার পাশাপাশি কার্যকর অক্সিজেন ব্যবস্থাপনায় দক্ষ হতে পারেন। ফেস মাস্কে সরবরাহ করা অক্সিজেনের বেশীর ভাগই অপচয়, নন রিব্রিদিং বা ভেনচুরি তা রোধ করে অনেকটাই, নিদেন পক্ষে ন্যাজাল ডেলিভারি টিউব। স্যাচুরেশন ৯৬ এর উপরে নেবার জন্য ফ্লো বাড়ানোর প্রানান্তকর চেষ্টা অপ্রয়োজনীয়, স্যাচুরেশন ৯২-৯৩ এর নীচে না এলে অক্সিজেন দেয়া জরুরি নয়। ভর্তি রোগী যেন নিজে নিজেই অক্সিজেন প্রবাহ না বাড়ান। পরপর তিন দিন বাড়তি অক্সিজেন ছাড়া স্যাচুরেশন ধরে রাখতে পারলে তাকে ছুটি দিয়ে শয্যা খালি করা। পুরো খালি না হওয়া পর্যন্ত অক্সিজেন সিলিন্ডার ব্যবহার করা। নিয়মিত ফ্লো মিটার পরীক্ষা করা। ইনভেসিভ ভেন্টিলেটর এড়াতে সি প্যাপ, বাই প্যাপ আর হাই ফ্লো হিউমিডিফাইড অক্সিজেন বাড়ানো। জরুরি নয় এমন সকল অস্ত্রপচার বন্ধ করা। ইন্ডাস্ট্রিয়াল অক্সিজেন ব্যবহারের বিকল্প এখনই করে রাখা। প্রয়োজনে নাইট্রাস অক্সাইড এর সিলিন্ডারকে অক্সিজেন সিলিন্ডার এ রূপান্তরিত করা। সচেতনতাবিহীন এই দেশে সংক্রমণ বাড়বেই, লক ডাউনকে নক ডাউন করার মত বীর পুঙপের অভাব নেই এদেশে। দিল্লির দৃশ্য ঢাকায় দেখতে না চাইলে এখনি কার্যকর সতর্কতা প্রয়োজন। মনে রাখা দরকার এবারের ভাইরাস কোভিড ১৯ নয় এটা কোভিড এর লেটেস্ট মডেল ডেলটা ২০২১। আর এর একমাত্র প্রমাণিত চিকিৎসা অক্সিজেন, অক্সিজেন এবং অক্সিজেন। লক্ষ্য করুন সংক্রমণের আর মৃত্যুর হার বাড়ছে আর কমছে আরোগ্যের হার। এখনি সতর্ক হই। ঝড় আসার পর ত্রান বিতরনের বাহাদুরির জনসেবা, মৃতদেহ সৎকারের মানবিকতা চাই না। পূর্বাভাসেই বাঁচার ব্যবস্থাপনা চাই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত

Theme Created By ThemesDealer.Com