রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তিঃ
দেশের সকল জেলা, থানা/উপজেলা/ইউনিয়ন এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে "দি সকাল বিকাল " এ চীফ রিপোর্টার, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে আগ্রহী প্রার্থীরা আজি যোগাযোগ করুন drsubratabogra@gmail.com । প্রিয় পাঠক আপনিও “দি সকাল বিকাল” নিউজকে পাঠাতে পারেন আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনার কথা জানাতে পারেন আপনার অভিজ্ঞতা অথবা আপিও হতে পারেন একজন সাংবাদিক । দি সকাল বিকাল এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ আমাদের সাথেই থাকুন
শিরোনামঃ
হারিয়ে যাচ্ছে বেদা জয়পুরহাটে সাংবাদিক আবদুল আলীম কে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি আমি যদি ভাল কাজ করে থাকি তাহলে এবার ও চাঁদগ্রামবাসী আমাকেই বিপুল ভোটে জয় করবে — চেয়ারম্যান আব্দুল হাফিজ তপন ফুলবাড়ীতে বন‍্যায় আমনের ক্ষেত নষ্ট উলিপুরে সরকারি চাল কালো বাজারে বিক্রির সময় আটক-১, অভিযুক্ত আ’লীগ নেতার ছেলের বিরুদ্ধে মামলা জয়পুরহাটে শিশু অপহরণ মামলায় যুবকের ২৫ বছর কারাদণ্ড ভেড়ামারা পৌর ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত। পাঁচবিবিতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আন্তঃজেলার কুখ্যাত ডাকাত শহিদুল ইসলাম (কারেন্ট)সহ গ্রেফতার-৩ এমপি পনির উদ্দিন এর অবদানে কুড়িগ্রামবাসীর জন্য ৩টি আনন্দের খবর কালাইয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

আগস্ট-সেপ্টেম্বরের আগে টিকা রপ্তানি করতে পারবেনা বলে আশংকা বিশেষজ্ঞদের।

রিপোর্টারের নাম / ৯১ বার
আপডেট সময় বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

সকাল বিকাল ডেক্সঃ     আগামী মাসের শুরু থেকেই ভারত ১৮ বছরের বেশি বয়সী সবাইকে কোভিডের টিকা দেবে, এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর দেশটিকে ভ্যাক্সিন রপ্তানি পুরোপুরি বন্ধ করে দিতে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর সেক্ষেত্রে আগামী আগস্ট-সেপ্টেম্বরের আগে টিকা রপ্তানি করতে পারবেনা বলে আশংকা সেদেশের বিশেষজ্ঞদের।মাসতিনেক আগে ভারতে করোনার টিকা অভিযান শুরু হয়েছে, কিন্তু এর মধ্যেই সে দেশে টিকা উৎপাদন প্রচন্ড চাপের মুখে পড়েছে এবং টিকার অভাবে বহু ভ্যাক্সিনেশন সেন্টার বন্ধও করে দিতে হয়েছে।এই পটভূমিতে একাধিক বিশেষজ্ঞ বিবিসিকে বলেছেন, দেশের সব প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিককে টিকা দেওয়ার অর্থ হল ভারতের ‘ভ্যাক্সিন মৈত্রী’ বা ‘ভ্যাক্সিন কূটনীতি’র আপাতত এখানেই অবসান ঘটছে।বাংলাদেশ-সহ যে সব দেশ শুধু ভারতে তৈরি টিকার অপেক্ষায় আছে, যথারীতি এই সিদ্ধান্তের প্রভাব পড়বে সে সব দেশেও।ভারতে এই মুহুর্তে যাদের বয়স ৪৫-র ওপরে, একমাত্র তারাই কোভিডের টিকা নিতে পারছেন।কিন্তু আগামী ১লা মে থেকে সব প্রাপ্তবয়স্ক নাগরিকের জন্যই ভ্যাক্সিনেশন উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে – যার অর্থ হল দেশের জনসংখ্যার প্রায় দুই তৃতীয়াংশ বা ৯০ কোটির মতো মানুষকে সরকার এই অভিযানের আওতায় নিয়ে আসতে চাইছে।কিন্তু এখন যে দুটি ভ্যাক্সিন এদেশে ব্যবহার করা হচ্ছে, অর্থাৎ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত ও পুনের সিরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি কোভিশিল্ড এবং ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন, তা দিয়ে এই বিপুল চাহিদা মেটানো কার্যত অসম্ভব।সে কারণেই এখন ভারত রাশিয়ার উদ্ভাবিত স্পুটনিক ভি কিংবা আরও নানা বিদেশি ভ্যাক্সিনকেও ছাড়পত্র দিচ্ছে।তবে এই মুহুর্তে সফল একটা অভিযান চালাতে হলে ভ্যাক্সিনেশনের গতি আরও অনেক বাড়াতে হবে বলে মনে করেন রয়্যাল সোসাইটির ফেলো ও ভারতের শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানী গগনদীপ কাং।ড: কাং বলেন, “এপ্রিলের মাঝামাঝি পর্যন্ত আমরা কিন্তু দেশের জনসংখ্যার মাত্র সাত শতাংশকে অন্তত এক ডোজ ভ্যাক্সিন দিতে পেরেছি। আর দুটো ডোজই পেয়েছেন এক শতাংশের কিছু বেশি লোক।”এই মুহুর্তে রোজ আমরা ৩০ লক্ষ বা তার কিছু বেশি ডোজ ভ্যাক্সিন দিচ্ছি। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছতে গেলে এটা দু-তিনগুণ বাড়ানো দরকার, রোজ অন্তত এক কোটি ডোজ দিতে পারলে খুব ভালো হয়।”এই লক্ষ্যের ধারে কাছে পৌঁছতে গেলেও যে ভারতকে বিদেশে টিকা রপ্তানি পুরোপুরি বন্ধ করে দিতে হবে, তা নিয়েও গগনদীপ কাংয়ের বিশেষ সংশয় নেই।এমনিতেই অবশ্য গত মাস থেকে ভারত বিদেশে ভ্যাকসিন পাঠানো বন্ধ রেখেছে, তবে সরকার সেই সঙ্গেই দাবি করেছে ওই পদক্ষেপ ‘সাময়িক’।
বাংলাদেশেও টিকাকরণ শুরু হয় ভারত থেকে কেনা ও ভারতের উপহারের ভ্যাক্সিন দিয়ে।কিন্তু দিল্লিতে জহরলাল নেহরু ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের বিশেষজ্ঞ বিশ্বজিৎ ধর বলেন, অদূর ভবিষ্যতে ভারত থেকে আর কোনো ভ্যাক্সিন রপ্তানির সম্ভাবনা তিনি দেখছেন না।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বিস্তারিত

Theme Created By ThemesDealer.Com